সাম্যবাদী » সাম্যবাদী

পাতা তৈরিঅক্টোবর ৯, ২০২০; ১৯:৪৮
সম্পাদনাঅক্টোবর ৯, ২০২০, ২০:০১
দৃষ্টিপাত
সাম্যবাদী কাজী নজরুল ইসলাম রচিত কাব্যগ্রন্থ। এটি ১৯২৫ সালের ডিসেম্বরের (পৌষ, ১৩৩২) ২০ তারিখে প্রকাশিত হয়। এই গ্রন্থে এগারোটি কবিতা রয়েছে; এর প্রতিটি কবিতায় কাজী নজরুল ইসলাম মানুষের সাম্যের কথা বলেছেন। বিভিন্ন পিছিয়ে পড়া জাতি নিয়েও কবিতা রয়েছে এই বইটিত। ধর্ম, বর্ণ, জাতি, লিঙ্গ সবকিছু পিছনে ফেলে মানুষের পরিচয়ই যে মহান তা সাম্যবাদী কাব্যগ্রন্থের মূলভাষ্য।
‘সাম্যবাদী’ ১৯২৫ ডিসেম্বরে পুস্তিকাকারে প্রকাশিত হয়। প্রকাশক মৌলভী শামসুদ্দীন হুসেন, বেঙ্গল পাবলিশিং হোম, ৫ নূর মহম্মদ লেন, কলিকাতা। ১৫ নং নয়ান চাঁদ দত্ত ষ্ট্রীট, কলিকাতা, মেটকাফ প্রেসে শ্রীমণিভূষণ মুখার্জী কর্তৃক মুদ্রিত। ৩২ পৃষ্ঠা, মূল্য দুই আনা।
১৩৩২ বঙ্গাব্দের ১লা পৌষ মুতাবিক ১৯২৫ খ্রিষ্টাব্দের ১৬ই ডিসেম্বর তারিখে ৩৭ নং হ্যারিসন রোড, কলিকাতা হতে ‘শ্রমিক-প্রজা-স্বরাজ-সম্প্রদায়ে’র সাপ্তাহিক মুখপত্র রূপে ‘লাঙল’ প্রকাশিত হয়। প্রধান পরিচালক ছিলেন কাজী নজরুল ইসলাম, সম্পাদক ছিলেন কবি’র পল্টনের বন্ধু মণিভূষণ মুখার্জী এবং কর্মাধ্যক্ষ ছিলেন মরহুম শামসুদ্দীন হুসেন। লাঙলের বিশেষ (প্রথম) সংখ্যায় ‘সর্বপ্রধান সম্পদ’—রূপে ‘সাম্যবাদী’ প্রকাশিত হয়।
সাম্যবাদী কাব্যগ্রন্থে ১১টি কবিতা অন্তর্ভূক্ত হয়েছিল—সাম্যবাদী, ঈশ্বর, মানুষ, পাপ, চোর-ডাকাত, বারাঙ্গানা, মিথ্যাবাদী, নারী, রাজা-প্রজা, সাম্য ও কুলি-মজুর। পরে সাম্যবাদীর চারটি কবিতা সর্বহারা কাব্যগ্রন্থের দ্বিতীয় সংস্করণে গৃহীত হয়। বাংলা একাডেমির নজরুল রচনাবলীতে সাম্যবাদীর প্রথম সংস্করণের পাঠ অনুসৃত হয়। আমরাও বাংলা একাডেমির অনুসরণ করেছি।
সূচিপত্র
গ্রন্থাবলী
মতামত জানান