গদ্যপদ্য » আকবর শাহের খোষ রোজ

পাতা তৈরিজানুয়ারি ২৮, ২০১৫; ০০:০৮
সম্পাদনাজানুয়ারি ২৪, ২০২১, ১৪:০০
দৃষ্টিপাত
১ রাজপুরী মাঝে কি সুন্দর আজি। বসেছে বাজার, রসের ঠাট, রমণীতে বেচে রমণীতে কিনে লেগেছে রমণীরূপের হাট।। বিশালা সে পুরী নবমীর চাঁদ, লাখে লাখে দীপ উজলি জ্বলে। দোকানে দোকানে কুলবালাগণে খরিদদার ডাকে, হাসিয়া ছলে।। ফুলের তোরণ, ফুল আবরণ ফুলের স্তম্ভেতে ফুলের মালা। ফুলের দোকান, ফুলের নিসান, ফুলের বিছানা ফুলের ডালা।। ...

রাজপুরী মাঝে

কি সুন্দর আজি।

বসেছে বাজার, রসের ঠাট,

রমণীতে বেচে

রমণীতে কিনে

লেগেছে রমণীরূপের হাট।।

বিশালা সে পুরী

নবমীর চাঁদ,

লাখে লাখে দীপ উজলি জ্বলে।

দোকানে দোকানে

কুলবালাগণে

খরিদদার ডাকে, হাসিয়া ছলে।।

ফুলের তোরণ,

ফুল আবরণ

ফুলের স্তম্ভেতে ফুলের মালা।

ফুলের দোকান,

ফুলের নিসান,

ফুলের বিছানা ফুলের ডালা।।

লহরে লহরে

ছুটিছে গোলাব,

উঠিছে ফুয়ারা জ্বলিছে জল।

তাধিনি তাধিনি

নাচিতেছে নটী,

গায়িছে মধুর গায়িকা দল।।

রাজপুরী মাঝে

লেগেছে বাজার,

বড় গুলজার সরস ঠাট।

রমণীতে বেচে

রমণীতে কিনে

লেগেছে রমণীরূপের হাট।।

কত বা সুন্দরী,

রাজার দুলালী

ওমরাহজায়া, আমীরজাদী।

নয়নেতে জ্বালা,

অধরেতে হাসি,

অঙ্গেতে ভূষণ মধুর-নাদী।।

হীরা মতি চুণি

বসন ভূষণ

কেহ বা বেচিছে কেনে বা কেউ।

কেহ বেচে কথা

নয়ন ঠারিয়ে

কেহ কিনে হাসি রসের ঢেউ।।

কেহ বলে সখি

এ রতন বেচি

হেন মহাজন এখানে কই?

সুপুরুষ পেলে

আপনা বেচিয়ে

বিনামূল্যে কেনা হইয়া রই।।

কেহ বলে সখি

পুরুষ দরিদ্র

কি দিয়ে কিনিবে রমণীমণি।

চারি কড়া দিয়ে

পুরুষ কিনিয়ে

গৃহেতে বাঁধয়ে রেখ লো ধনি।।

পিঞ্জরেতে পুরি,

খেতে দিও ছোলা,

সোহাগ শিকলি বাঁধিও পায়।

অবোধ বিহঙ্গ

পড়িবে আটক

তালি দিয়ে ধনি, নাচায়ো তায়।।

গ্রন্থাবলী
মতামত জানান